Translate

Buy and Sell your white hat SEO services.

Buy and Sell PHP Scripts, code, ASP, C#, Javascripts,Java, CSS and more.

Wednesday, February 12, 2020

আপনি কিভাবে নেইম চিপ ডোমেইন রিনিউ করবেন?

গতকাল আমি নেইমচিপ ডোমেইন রিনিউ করলাম। তার আগে একাউন্ট ব্যালান্স টপ আপ করে নিলাম। এইকানে আপনাকে দেখাবো আমি ষ্টেপ বাই ষ্টেপ। নেইমচিপ পৃথিবীর অন্যতম প্রধান ডোমেইন এবং হোষ্টিং সেলার প্রতিষ্টান।



 উপরের ছবিতে আপনি ক্লিক করেন তাহলে আপনি একটা ওয়েবসাইট পাবেন যেখান থেকে আপনি েপছন্দমতোন ডোমেইন কিনতে পারবেন।আপনি যে নামে ডোমেইন সার্ করবেন সেই নামে যদি পৃতিভতে ডোমেইনটা কেউ না কিনে  থাকে তাহলে আপনি ডোমেইন টা কিনতে পারবেন। এখানে দেখেন ওযেবসাইটে আসার পরে সার্চ ডোমেইন অপশন আছে। তান সাথে লিখা আছে - Go Bid with  your next domain.  এখানে আপনি আপনার ডোমেইন নেম লিখে সার্চ কম্পাসে ক্লিক করবেনথ তাহলে আপনাকে সে এভেইলেবল ডোমেইন নেম গুলো দেখাবে। সেখান থেকে আপনার ডে ডোমেইন নেম টা ভালো লাগবে সেটাই আপনি কিনতে পারবেন। ডোমেইন সেলার বা রিসেলার হিসাবে বাংলাদেশের অনেক কোম্পানি আছে। তাদের কাছ থেকে ও আপনি ডোমেইন কিনতে পারবেন। কারন ডোমেইনটা কিনার পরে আপনার ডোমেইন টা মেইনটেইন করার ব্যাপারও  আছে। যদি কখনো ডোমেইন টা হ্যাক হয় সেটা আবার ফিরআয়িা আনার ব্যাপার আছে। এখন জানি কিভাবে একটা ডোমেইন নেম তৈরী হয়। 

একটা ডোমেইন এর মাষ্ট বি ৩ টা পার্ট থাকবে। প্রথমে www বা http://www বা https://www. বা http://
বা https://    এইটা ১ম পার্ট। এর মানে হইতাছে আমরা সবাই জানি ওয়াল্ড ওয়াইড ওযেব । আর  http বলতে বোঝানো হয় হাইপার টেক্সট ট্রান্সফার প্রটোকল। এই ব্যাপারে ডিটেইলস আরেকদিন জানাবো। 



সেকেন্ড পার্ট: আপনার ডোমেইন নাম এর মূল অংশ। যেমন আপনি মনে করেন নতুন একটা ডোমেইন কিনতে চাইতাছেন জয় বাংলা নামে। দেখেন জয় বাংলা নেম টা এখানে কিভাবে দেখায়। এখঅনে ইংরেজিতে লিখার সময়ে আপনাকে অবশ্যই জয় বাংলা র মাঝখানে কোন গ্যাপ রাখা যাবে না। 

৩য় অংশ:  ডট এক্সটেনশন। (.extension) এখানে ডট এক্সটেনশন বলতে বোঝানো হয় যে- আপনার ওয়েবসাইটের শেসের যে অংশটা থাকবে সেটাকে। নীচের ইমেজগুলোর মাধ্যমে দেখাবো একটা ওয়েবসাইটের ঠিক কয়টা একসএটনশন হয়অ অনেক ধরনের এক্সটেনশন আছে বিশ্বে। আজকে থেকে ১০ বছর আগে ইন্টারনেট ওয়ার্ল্ডে শুধু ডট কম ছিলো । এখণ আর নাই। এখন অনেক  এক্সটেনশন আছে। যেমন উপরে আমার ওযেবসাইটের ইমেজে দেখেছেন যে .xyz দেয়া আছে। সো এখানে .xyz বলতে এক্সটেনশন বোঝানো হয়।





এখানে আমি তাসনিয়া ফারিন লিখে সার্চ দিছি এবং আপনি দেখতে পেরেছেন কতোগুলো ডোমেইন নেম এভেইলেবল। যতোগুলো ডট একসএটনশন নাম কিনে ব্যবহার করতে পারবেন। এখানে প্রথমে দেখানো হইতাছে তাসনিয়া ফারিন ডট কম নামটা বুকড করে রেখেছে। এইটাকে ডোমেইন পার্ক বলে। মনে করেন তাসনিয়া ফারিন বাংলাদেশের জনপ্রিয় মডেল। তার জনপ্রিয়তা দিন দিন বেড়ে চলতাছে। অলরেডী সে কয়েকটা ব্যান্ডের বিজ্ঞাপনে শ্যুট করেছে। সো তার নামের ডোমেইন গুলোর চাহিদা দিন দিন বেড়ে যাবে। বাংলাদেশে এখনো এরকম মডেল দেখি নাই যে তার সবগুলো ডোমেইন কাজে লাগাতে পারবে। এগুলো সারা বিশ্বে যারা সুপার মডেল আছে তারা করতে পারে। বাংলাদেশে যে সকল নাম জনপ্রিয় সেগুলো যদি আপনি আগে  ভাগে আপনার ক্রেডিট কার্ড বা যে কোন পেমেন্ট মাধ্যমে কিনে থাকেন তাহলে অরিজিনালি যখন ডোমেইন গুলো দরকার হবে তখন যে ডোমেইন কিনতে চাইতাছে সে আপনার কাছ থেকে চড়া দামে কিনে নিবে। আর  ফ্রি ল্যান্সিং  জগতে এই জনপ্রিয় মেখড টাকে বলা হয় ডোমেইন পার্কিং। আপনি ডোমেইন পার্ক করেও অনেক ডলার উপার্জন করতে পারবেন।  উপরের ছবি গুলোতে আমি বাম দিকের ডোমেইন গুলো মার্ক করে দিছ এবং ডান দিকে ডোমেইন প্রাইস ও মার্ক করে দিছে। যেভাবে ই কমার্স ওয়েবসাইট থেকে কোন কাটা কনে ঠিক সে ভাবেই ইন্টারন্যাশনার ক্রেডিট কার্ড বা ডেবিট কার্ড এর মাধ্যমে আপনি ও নিজের নামে যে কোন ডোমেইন কেনা কাটা করতে পারবেন। আর আপনার যখন মনে চায় নেইম চিপ থেকে কেনা কাটা করণে আপনি অন্য যে  কারো নামে ডোমেইনটা ট্রান্সফার করতে পারবেন। সেটা আরো একদিন ডিটেইল স প্রমান সহ দেখানো হবে। 

এখন এড টু কার্ট করে মনে করেন আপনি একটা ডোমেইন এক বছরের জন্য কিনে ফেলেছেন। ডোমেইন প্রতি বছরের জন্যই রিনিউ করতে হয়। যারা বড় সড় ব্যবসা করে তারা মনে করেন একবারে ১০-২৫ বছরের জন্য ডোমেইন কিনে নেয়। এছাড়াও আপনার নামের ডোমেইন যদি খুব বেশী চার্জে হয়ে যায় তাহলে আপনি ডোমেইন সেলার প্রসতষ্টানের কাষ্টমার কেয়ারের সাথে কথা বলে একটা বেটার আইডিয়া পাইতে পারেন বা অন্য নামে সেটা সহজ দাম সেটা কিনেও আপনি আপনার ব্রান্ড বা ব্যবসা শুরু করতে পারেন। তারপরেও আপনার যদি আরো ডিটেইলস সাহায্য লাগে তাহলে আর্টিকেলের নীচে আামর ডিটেইলস কন্ট্রাক্ট দেয়া থাকবে সেখান থেকে যোগাযোগ করতে পারেন। আমি আমার সাধ্যমতো চেষ্টা করে জানাবো। কিভাবে ডোমেইন রিনিউ করতে হয় তা নীচে ইউটিউব ভিডিও আকারে দেখানো হলো।










এখানে ডোমেইন নেম রিনিউ করার ডিটেইলস ইমেজের মাধ্যমে এবং একটা স্ক্রিনশটের মাধ্যমে দেখানো হলো। একটি ডোমেইন যদি আপনি ১ বছরের জন্য কিনেন তাহলে আপনি রিনিউ করার সময়ে সেটাকে ৫/১০/১৫/২০/২৫ বছরের জন্য েরিনিউ করতে পারেন। আবার যদি আপনি একটা ডোমেইন ১০ বছরের জন্য কিনেন আর একটা ব্যবসা শুরু করেন আর ৭ বছর পরে আপনি যদি সেই ব্যবসা সেল করে দিতে চান তাহলে আপনি  ডোমেইন সহ সেল করে দিতে পারেন বা ট্রান্সফার করে দিতে পারেন। আপনার যদি িএ ব্যাপারে আরো ডিটেইলস জানার থাকে তাহলে আপনি আমাকে নক দিতে পারেন। ডিটেইলস জানাবো বা পরে আরো একটি ব্লগ লিখিত আকারে তৈরী করে বা ভিডিও তৈরী করে আপনাকে দেখাবো। 

সো আশা করি ডোমেইনের ব্যাপারে অনেক কিছু জানতে পারলেন। এখন আপনি যদি প্রশন্ন করেন যে ভাই আপনি ভিডিও তৈরী না করে ব্লগ লিখলেন কেনো - আমি উত্তরে বলবো প্রথমত আমি বাংলা লিখতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি। দ্বিতীয়ত বিশ্বে পড়তে ভালোবাসে এরকম লোকের সংখ্যা চিরকালই থাকবে। 

এই ভিডিওতে আপনি দেখতে পারবেন কিভাবে নেইমচিপ ডোমেইন কে রিনিউ করা হয়। কিভাবে এড ফান্ডে ফান্ড এড করবেন আর কিভাবে হুইজ গার্ড রিনিউ করবেন। Who is Guard একটি প্রতিষ্টান যা নেইম চিপের সাথে এবং আরো অণ্যান্য ডোমেইন সেল প্রতিষ্টানের সাথে কাজ করে যাদের মেইন কাজ হইতাছে ডোমেইন কে হ্যাকারদের হাত তেকে সেফ রাখা। আর যদি আপনার ই কমার্স ওয়েবসাইট থাকে তাহলে আপনাকে আলাদা করে  এসএসএল সার্টিফিকেট কিনতে হবে। 


No comments:

Post a Comment

Thanks for your comment. After review it will be publish on our website.

#masudbcl

Buzzfeed Community Post. Guideline. Step by Step.

​ #buzzfeed #community #buzzfeedcommunity #buzzfeedpostshare #feedpost ​ #feedpostcommunity

$$ Forum post $$ Blog Comment $$

Earn Money Posting in Forums