Translate

Wednesday, January 6, 2021

পেয়ে গেলাম ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন এপরুভাল। ১৮ ঘন্টার মধ্যে।

 আবেদন করার সর্ব্বোচ্চ ১৮ ঘন্টার মধ্যে পেয়ে গেলাম আমার এই ব্লগের ওয়েবসাইটের সাথে কানেক্টেড ইউটিউব চ্যানেল masudbcl মনিটাইজেশন। সেই অভিজ্ঞতা নিয়ে একটি ভিডিও ও তৈরী করলাম কিন্তু কোন এডভারটাইজার ইস্যু পায় কিনা সেজন্য ভিডিওটি প্রাইভেটে রাখতে হয় কয়েকঘন্ট যা এই পোষ্টের সাথে পরে এড করে দেবো। আমার ব্লগ যারা প্রতিনিয়ত পড়েন তারা সকলেই জানেন যে: আমার ব্লগের নামে আমার একটা ইউটিউব চ্যানেল নামও আছে । ইউটিউব মনিটা্িজেশন এপরূভাল পাবার ক্ষেত্রে আমি যে নিয়মগুলো অনুসরন করেছি তাই নিয়ে তৈরী করা হয়েছে ভিডিও টি। একদমই সহজ এবং এপুরভাল পাইতে আপনার ১ টাকাও খরচ হবে না। এমনিতে সারা দেশে অনেক লোক আছে আবেদন এবং এপরুভাল পাবার কথা বলে আপনার কাছ থেকে টাকা নিবে কিন্তু ব্যাপারটা হলোে আপনি নিজে যদি পুরো ব্যাপারটা জানেন তাহলে কিন্তু ১ টাকাও খরচ লাগবে না। 







বেসিক যে নিয়মগুলো আপনি ফলো করতে পারেন তা হলো: 
  • আপনি ভিডিও গুলো তৈরী করবেন ১ ঘন্টা সময় নিয়ে মিনিমাম। 
  • আপনার ভিডিও ইনট্রো বা আউটট্রো , আই বাটন এবং থাম্বনেইল অবশ্যই মেইনটেইন করতে হবে। না পারলেও সমস্যা নাই। 
  • ভিডিও গুলো কোনভাবেই কপি পেষ্ট করা যাবে না। 
  • কোন কান থেকে ভিডিও এনে এডিট ও করা যাবে না। 
  • আরেকজনের ভিডিও কন্টেন্ট কপি পেষ্ট বা কাট পেষ্ট করা যাবে না। 
  • বিগত ১ বছল বা ৩৬৫ দিনে আপনাকে ৪০০০ ঘন্টা ওয়াচটাইম এড করতে হবে। যদি আপনার ভিডিও গুলো ১ ঘন্টার হয় তাহলে   আপনার বন্ধুরা ৪০০০ জন ১ ঘন্টা করে দেখলে হয়ে যাবে বা ১ ঘন্টার ৪ টি ভিডিও আপনার ১০০০ বন্ধু দেখলেও হয়ে যাবে। 
  • ১০০০ সাবস্ক্রাইভার। পরিচিত বা অপিরিচিত বা আপনার ভিডিও কন্টেন্ট দেখে আপনার ভক্ত হলে সে আপনাকে সাবস্ক্রাইভ করবে। 
  • পুরো ভিডিওত একবারের জন্য হলেও অনুরোধ করবেন লাইক কমেন্ট ফলো বা শেয়ার করতে- তাতে যারা আপনার ভিডিও পছন্দ করবে তারা লাইক কমেন্ট বা শেয়ার করবে। 

                                   


আমি আবেদন করার সময়ে মোটামুটি শিওর ছিলাম যে: আমি মনিটাইজশেণ এপরুভাল পাবো কারন আমি কারো কন্টেন্ট কপি পেষ্ট করি নাই। তবে আনপরা পুরো ভিডিওগুলো র বেতরে যেনো একটি ভিডিওতে হলেও লিভিং বিংস থাকে যেমন: মানুষ বা আপনার চেহারা বা আরো কিছু যেমন: মৌমাছি বা বিড়াল বা কবুতর বা গুর বা ছাগল সেরকম। মনিটাইজেশন পাবার প্রথম শর্ত হলো : লিভিং বিংস। যেমন: আপনার ভালো লাগলো আপনি ২ ঘন্টার একটি ভিডিও তৈরী করলেন শুধু পাখি উড়ার উপরে বা শুধূ ফুলেরি ভিডিও এরকম। যাই হোক টেক্স চ্যানেলে ক্ষেত্রে একবারের জণ্য হলেও লিভিং বিংস হতে হবে। আর অন্যান্য চ্যানেলে ক্ষেত্রে ব্যাপার গুলো বা বিষয়েগুলেঅ আলাদা। যেমন: বাংলাদেশে সোলস ব্যান্ডের গান অনেকেই ইউটিউব চ্যানেরে তুলে রেখেছে যেগুলো কপিরাইট আইনে সিক্ত। কারন তাদের অডিও গানগুলো ইন্টারনেটে তাদের পারসোনাল প্রপার্টি । শুধূ সোলস না যে কোন ব্যান্ডের গানই তাদের প্রপার্টি। 







কালকে রাতে আবদেন করেছি- আজকে দুপুরে এপরুভাল পেয়েছি। 
 


আরো একটি গুড লাক নিউজ: আমার চ্যানেলে এখন ভিডিওএড দেখাইতাছে। 
Wish me Luck.














No comments:

Post a Comment

Thanks for your comment. After review it will be publish on our website.

#masudbcl

Marketplace English Tutorial. Freelancing.Outsourcing.

আমার ইউটিউব চ্যানেলে ৫০০০ ভিউজ থেকে ৩২০০০ মিনিটস এক মাসে।

 এক মাসে আমার চ্যানেলে ৩২০০০ মিনিটস। আমার নিজেরই বিশ্বাস হইতাছে না। ৫১০৫ ভিউজ থেকে আমি পেয়েছি ৩২০০০ মিনিটস। যদি ৬০ মিনিটস দিয়ে ভাগ করি ৫৩৩ ঘ...