Translate

Thursday, September 16, 2021

দেশবিরোধী (ফাসি), দালাল (ফাসি), রাজাকার (ফাসি) প্রজন্ম (ফাসি) ই বাংলাদেশে হ্যাকার প্রজন্ম।

 দেশবিরোধী (ফাসি), দালাল (ফাসি), রাজাকার (ফাসি) প্রজন্ম (ফাসি) এর মূল চাহিদা ই হলো সবসময় বাংলাদেশের মানুষের ক্ষতি করা। বাংলাদেশে হ্যাকিং নিষিদ্ব থাকা সত্বেও এবং হ্যাকারদের বিরুদ্বে রাষ্ট্রীয় সাজার বিধান থাকলেও (সেনসিটিভ ইস্যু : যেমন বাংলাদেশ ব্যাংখ হ্যাকিং এর সাথে যদি কেউ জড়িত থাকে তাহলে তার ফাসির বিধান আছে) তারা সমানে সমাজে এক শ্রেনীর মানুষের সহায়তায় হ্যাকিং করে যাইতাছে। তাদেরকে যারা সাহায্য সহযোগতা করতাছে তারাও এক ধরনের দেশবিরোধী (ফাসি), দালাল (ফাসি), রাজাকার (ফাসি) প্রজন্ম (ফাসি) এবং বা শতরু দেশের প্রজন্ম। তারা বাংলাদেশে শতরু দেশের পক্ষে অবস্থান করে, বাংলাদেশের তথ্য হ্যাক করে যাইতাছে ক্রমান্বয়ে। অনেক সময় তারা এনড্রয়েড অপারেটিং সিষ্টেম ও হ্যাক করে ফেলােইতাছে। ইউটিউব ষ্টুডিওেএনালাইটিকস সহ নানা ধরনের প্রোগা্রামের আপডেট গ্যানজাম লাগতাছে। ক্যিালিফোরনিয়া থেকে বরাদ্দ ইন্টারনেটে বাংলাদেমেল আপডেট গুলো থামাইয়া দিতাছে বা রান হতে দিতাছে না। অনেক সময় ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট কানেকশন ও গ্যানজাম লাগাইয়া দিতাছে। তাদের একমাত্র কাজ হইতাছে: বাংলাদেশ কে নিরবিচ্চিন্ন হতে দিবে না। খুব সহজে তারা বাংলাদেশ কে আগাত েদেবে না। রাষ্ট্রের বেতরে তাদের হাত আচে: বৈধ নাগরিকত্বে এবং বৈধ জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর ছাড়াই তারা ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট কানকেশন ব্যবহার করে যাইতাছে আর ঝামেলাও করে যাইতাচে সব খানে। 


যখনি ভালো কোন প্রোগ্রাম বাংলাদেশে দাড়া হবার চেষ্টা করে সেটাকে নষ্ট করে দেবার ধান্ধা করে। অনলাইনে বা বিভিন্ন ধরনের প্রোগ্রামের কথা বলে সাধারন মানুষের কেটে হাত ঢুকায় এবং ছলে বলে কৌশলে বিপুল পরিমান অর্থও তারা হাতাইয়া নিতাছে। তাদের কে যারা সাহায্য সহযোগিতা করতাছে একসময় তারা বাংগালীর অভিশাপে মানুষ থেকে চিরস্থায়ী ভাবে কুত্তা হয়ে যাইতে পারে (সেই সকল দেশবিরোধী হ্যাকার সহ)। হ্যাকার রা রাষ্ট্র এবং দেমের শতুর। তারা যখনি সুযোগ পায় মানুসেল কোন না কোন ক্ষতি করে। কারো ফেসবুক একাউন্ট হাতিয়ে নেওয়া বা কারো ইউটিউব একাউন্ট গাতিয়ে নেওয়া। কারো ক্রেডিট কার্ডের ইনফরমেশন চুরি করে যাওয়া বা ব্যাংক এমাউন্ট চুরি করা। বাংলাদেমে জাতয়ি পরিচয়পত্র থাকারপ রেও কিভাবে ঞ্যাকার রা মাথা খাটায় আমার টিক বুঝে আসতাছে না? তারা কি মাটির তল দিয়ে বা সাগরের তল দিয়ে আলাদা কোন ইন্টারনেট কাকেনশন নিয়ে এসেছ নাকি সিলিকন ভ্যালি থেকে। তাদের কে গ্রেফতারের আওতায় এনে বিপুলপ রিমান জিজ্ঞাসাবাদ করা দরকার। আইন করা দরকার: জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর ছাড়া কেউ ইন্টারনেট ব্যভহার করতে পারবে না্। বাচ্চারা তাদের বাবা মাদের ইন্টারনেট ব্যবহার করবে।


ইদানিং কালে আমি এক নতুন ধরনের হ্যাকারদের উৎপাতে অতিষ্ট: প্রায় মারা যাবার দশা। তাদের অত্যাচার এতো কঠিন আমি কল্পনাও করি নাই। তারা ইউটিউব চ্যানেলের সাবস্ক্রাইভার হ্যাকার। এতো এতো ব্যাপার থাকতে শেষ পর্যন্ত সাবস্ক্রাইবার হ্যাকার। আসলে নতুন নতুন সাবস্ক্রাইভার পাওয়া আনন্দ বা সুখের ব্যাপার যা এই দেশের দেশবিরোধী (ফাসি), দালাল (ফাসি), রাজাকার (ফাসি)  কুত্তার বাচ্চার প্রজন্ম (ফাসি) এর সহ্য হয় না বিধায় তারা এই ধরনের হ্যাকিং শুরু করেছে। আমার ছোট একটা চ্যানেল: একণ ২৫০০+ সাবস্ক্রাইভার: কিন্তু আপনি বিশ্বাস করবেন না প্রায় ২৩৫০০ সাবস্ক্রাইভার আমার চ্যানেরে এড হয়েছে: যা তারা ডিলেট করে দিয়েছে। তাদের মনে মনে ধারনা যে: তারা ইউটিউবের মালিক হয়ে গেছে: কিন্তু আদতে ইউটিউব একটি ইনকরপোরেশণ। এইটার মারিকানা যুক্তরাষ্ট্রের বেথর ছাড়া অন্য কোথাও বদল হয় না। 



 



 

No comments:

Post a Comment

Thanks for your comment. After review it will be publish on our website.

#masudbcl

Search masudbcl on google

Marketplace English Tutorial. Freelancing.Outsourcing.

366 views 14.95$ | How much youtube pays for per one view?

  366 views= 8.22$ as a 55%.  Youtube Monetization Program pays their creators as a 55%-45% ratio. Lets see: from this day earning how much...