Translate

Monday, November 2, 2020

হোয়াইট হ্যাট এসইও। অফ পেজ অপটিমাইজেশন। ফোরাম পোষ্ট রিপ্লাই। White Hat SEO- Off Page Optimization- Forum Post Reply.



হোয়াইট হ্যাট এসইও তে খুব দরকারি আরেকটি কাজের নাম: ফোরাম পোষ্ট রিপ্লাই। ফোরাম রিলেটেড যে কাজগুলো আমরা করেছি সেগুলো হলো: 

  • ফোরাম প্রোফাইল রেজিস্ট্রেশন। 
  • ফোরাম প্রোফাইল সিগনেচার।
  • ফোরাম প্রোফাইল ব্যাকলিংক।
  • ফোরাম পোষ্ট (শুধূ কন্টেন্ট)।
  • ফোরাম পোষ্ট রিপ্লাই।
  • ফোরাম পোষ্ট ডু ফলো অর নো ফলো।
  • ফোরাম পোষ্ট রিপ্লাই ডু ফলো আর নো ফলো। 
  • ফোরাম ব্লগ ওয়েব ২.০
ফোরাম পোষ্ট করতে যে যে নিয়ম পালন করা হয়- ফোরাম পোষ্ট রিপ্লাই করতে একই নিয়ম পালন করতে হয়। যেমন:

  • ১৫০ শব্দের মধ্যে রিপ্লাই করলে ভালো হবে। 
  • অপ্রাসংগিক কোন রিপ্লাই করা যাবে না। 
  • অপ্রাসংগিক কোন রিপ্লাই কররে সেটা ডিলেট হয়ে যেতে পারে বা বিরক্তির কারন হতে পারে।
  • ফোরাম পোষ্ট রিপ্লাই এ আপনি ডু ফলো বা নো ফলো কমেন্ট করতে পারেন যা আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ভালো হবে তবে সেটা ১৫০ শব্দের মধ্যে একবার করলে ভালো হবে। 
  • ভাষার প্রসাংগিকতা বজায় রাখতে হবে। বাংলা ভাষার ফোরাম হলে সেখানে ইংরেজীতে কমেন্ট করা যাবে না।  
  • ফোরাম রিপ্লাই করতে হলেও আপনাকে ফোরাম প্রোফাইল তৈরী করতে হবে। আর যেখানে ফোরাম প্রোফাইল বানাবেন সেখানে অতি অবশ্যই ফোরাম ব্যাকলিংক বা সিগনেচার বা ছবি বা ইমেজ বা কি ওয়ার্ডস গুলো শো করতে হবে। 
যে কোন কি ওয়ার্ডের উপর ভিত্তি করে যে কোন ক্যাটাগরিতে ইন্টারনেটে অবস্থান করা কোন ফোরামে যখন কেউ কোন পোষ্টের উপরে রিপ্লাই করে এবং সেখানে ফোরাম পোষ্ট রিপ্লাই টা শো করে সেটাকে আমরা ফোরাম পোষ্ট রিপ্লাই বলে থাকি। অনেক সময় অনেক বায়ার বা ক্লায়েন্ট আছে যারা শুধু ফোরাম পোষ্ট রিপ্লায়ার খুজে থাকে। তারা ফোরাম সিগনেচার এবং ফোরাম পোষ্ট রিপ্লায়ার খুজে থাকে। এই বিশ্বে ইন্টারনেটে একেকজনের এসইও করার নিয়ম একেকধরনের। যারা খুব ভালো ফোরাম ইউজার তারা তাদের নির্দিষ্ট ক্যাটাগরিতে স্পেসিফিক ফোরাম পোষ্টের সবগুলো ফোরাম পোষ্ট রিপ্লাই দেখে বা পড়ে থাকে। ফলে ফোরাম পোষ্ট রিপ্লাই এ যদি খুব ভালো করে ডু ফলো বা নো ফলো রিপ্লাই তৈরী করা যায় সেখানে নিশ্চিত ভাবেই সেলস জেনারেট করা যায় বা লিডস আনা যায়। এছাড়াও ওয়েবসাইটে ইমপ্রেশন তৈরী করা যায়। তাছাড়াও সারা বিশ্ব থেকে ওয়েবসাইটে ট্রাপিক বা ভিজিটর আনা যায়। আপনার ওয়েবসাইটের পজিশন বা র‌্যাংক (টিএ, ডিএ, পিএ, ডিআর ইত্যাদি) বাড়ানো যায়। 

আপনার যদি ক্যাটাগরি হয় ফুটবল আর আপনি যদি ফোরাম রেজিস্ট্রেশন, ফোরাম পোষ্ট বা রিপ্লাই করেন আসবাবপত্র ক্যাটাগরিতে তাহলে আপনার রিলেটেড ট্রাফিক বা ভিজিটর বা র‌্যাংক হবে না। এই সকলের মূল শর্ত হইতাছে: আপনাকে রিলেভেন্ট ক্যাটাগরি বজায় রাখতে হবে। যদি আপনার ক্যাটাগরি রিলেভেন্ট না হয় তাহলে আপনার তেমন কোন লাভ হবে না। কিছু ডু ফলো বা নো ফলো ব্যাকলিংক করার কারনে আপনার ওয়েবসাইটের সামান্য কিছু র‌্যাংক বা পজিশন আপ হবে। 

ফোরামের ব্যাপারে কোন বায়ারের কাছ থেকে অর্ডার নেবার প্রথম ধাপই হইতাছে : ফোরামের ক্যাটাগরি টা  আগে চেক করা। একজন বায়ার যদি হঠাৎ আইসা আপনাকে কাজের অর্ডার দেয় যে: আমাকে কার (Car) ক্যাটাগরিতে ২০টা ফোরাম পোষ্ট করে দাও। দরকারি ক্যাটাগরি গুলো ইন্টারনেটে সার্চ করে বের করে যদি কোন টিম থাকে আর সেখানে থেকে আপনি এবং আপনর টিম মেম্বার রা সকলে মিলে ইন্টারনেটে যতো ক্যাটাগরি আছে তা ভাগ করে নিবেন। ধরেন: একজন নিলেন ফুটবল খ্যাটাগরি, একজন নিলেরন ক্রিকেট ক্যাটাগরি, একজন নিলের আসবাবাপত্র খ্যাটাগরি, একজন নিলেন কার বা মাইক্রো ক্যাটাগরি। এরকম ৫০ টা ক্যটাাগরি সিলেক্ট করে সেখানে ৫০ জন যদি ১০ টা করে ৫০০ ফোরামে রেজিস্ট্রেশন করেন আর মার্কেটপ্লেসগুলোতে জানান দেন যে: আপনার ফোরাম পোষ্টিং করার স্কোপ আছে- সেই সাতে আপনি একজন রিয়েল ইউজার হিসাবে ফোরাম পোষ্টিং করতে থাকলেন: ফোরামে একটিভ থাকলেন তার ও আগে আপনি যেই ক্যাটাগরি তে কাজ করবেন সেই ক্যাটাগরি রিলেটেড যদি কোন এফিলিয়েট প্রোগ্রামে জয়েণ করেন তাহলে একই সাথে আপনার এফিলিয়েট মার্কেটিং ও হয়ে গেলো। আপনি এমাজন এফিলিয়েট প্রোগ্রাম থেকে যে কোন পএফিলিয়েট নিয়ে কাজ করতে পারবেণ। এমাজনে যে মনে চায় সেই জয়েন করে কাজ করতে পারবে। এমাজনে একটা ওয়েবসাইট এড্রস দিতে হয়। সেই ক্ষেত্রে আপনি একটা ফ্রি ব্লগ তৈরী করে নিতে পারেন। কিভাবে ফ্রি ব্লগ তৈরী করবেন তার একটা ভিডিও নীচে এড করে দেয়া হরো। আপনি যদি ভিডিওটা এ টু জেড দেথে থাকেন তাহলে আপনি যা যা করতে পারবেন : 


পরবর্তীতে একটি ভিডিও তৈরী করার মাধ্যমে দেখাবো কিভাবে এমাজনের এফিলিয়েট প্রোগ্রামে আবেদন করতে হবে। 


No comments:

Post a Comment

Thanks for your comment. After review it will be publish on our website.

#masudbcl

Marketplace English Tutorial. Freelancing.Outsourcing.

সোশাল কমিউনিকেশন এবং ইন্টারনেটে সোশাল মিডিয়া কম্যুনিটি বলতে কি বোঝেন?

সোশাল কমিউনিকেশন বলতে সাধানত বোঝানো হয় একটা সোসাইটিতে সকলের সাথে যোগাযোগ রাখা। বাংলাদেশে অনেক ধরনের সোসাইটি আছে। বাংলাদেশে কিছু কিছু সোসাইটি...