Translate

Monday, September 28, 2020

masudbcl.com ডোমেইন ফেরত পাওয়া। কিভাবে ডোমেইন সার্চ করতে হয়।



ডোমেইন নেম রেজিষ্ট্রেশন ও করতে পারবেন আপনি নেইম চিপ ব্যবহার করে- আবার আপনার ব্যবহৃত নেইম চিপ ডোমেইনটি আপনি ট্রান্সফার ও করে দিতে পারেন অন্য কোন নেইমচিপ ব্যবহারকারীর কাছে। বাংলাদেশে লোকজন পড়তে ভালোবাসে কারন ইউটিউব ভিডিও তে যে হাই রেজ্যুলূশন ব্যবহার করে তাতে আমাদের দেশের মানুষের মোবাইলের এমবি শেষ হয়ে যায় দ্রত। আমি এই টপিকস টা নিয়ে একটি  ভিডিও ও বানাবো তার আগে  এইখানে আমি থিওরটিক্যাল পুরোটা দেখাবো। আপনি যদি একটি ডোমেইন মেইন টেইন বা কন্ট্রোল করতে না শিখেন - তাহলে আপনি ভবিষ্যতে আপনার ডোমেইন নেম টা হারাইয়া ফেলতে পারেন। আর যদি কেউ আপনার ডোমেইনের সব লগিন ডিটিইলস চুরি করে তাহলে - তাকে ডোমেইন চুরি বলা হয়। আর যদি কেউ আপনাকে না জানিয়ে তথ্য চুরি করে আর আপনি আপনার ডোমেইন টা হারাইয়া ফেলেন তাকে ডোমেইন হ্যাক বলা হয়। হ্যাকাররা  আপনার কম্পিউটারে পৌছানোর আগে পর্যন্ত আপনাকে হ্যাকড করতে পারবে না। তাই প্রথমেই আপনার ব্যবহৃত সকল পাসওয়ার্ড আপনি কম্পিউটার থেকে সরাইয়া ফেলাবেন এবং বাহিরে পেন ড্রাইভে রাখবেন বা সিডি করে রাখতে পারেন তা টু ষ্টেপ অথেনটিকেশন ব্যবহার করতে পারেন বা  কোডিং জেনারেটর ও ব্যবহার করতে পারেন। আপনার ডোমেইনকে নিরাপদ রাখার প্রধান উপায় হলো আপনি আপনার ডোমেইনটা যে ওয়েবসাইট থেকে কিনেছেন সেই ওয়েবসাইট এর সকল পাসওয়ার্ড সিকিউরিটি সিষ্টেম কে একটিভেট রাখতে হবে। তাহলে আপনি আপনার ডোমেইন নেমটাকে কখনো হারাবেন না। দ্বিতীয়ত অবশ্যই এসএসএল সার্টিফিকেট ব্যবহার করতে হবে। তৃতীয়ত ব্যাড ইন্টারনেট কানেকশন এভয়েড করে চলতে হবে আপনি যদি বুঝে থাকেন আপনার নিকটস্থ কেউ হ্যাকড হয়েছে বা প্রতিনিয়ত হ্যাক হইতাছে তাহলে সেই ইন্টারনেট কানেকশন টাকে এভয়েড করে চলতে হবে। কারন ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট কানেকশনে আপনার একাউন্ট হ্যাক করার জন্য আপনাকে আইএসপি কোড ভেংগে /আইএসপি সার্ভার হ্যাক করে সেখান থেকে আইপি এড্রেস কালেক্ট করে তারপরে আপনার ডিভাইসে ব্যবহৃত ম্যাক/আই পি নাম্বার জেনে তারপরে আপনার ডিটেইলসে জেনে আপনাকে হ্যাক করবে হ্যাকাররা আপনার কম্পিউটার বা ল্যাপটপে ঢুকে। এভাবেই পড়ে দেখেছি আগেকার দিনের ইন্টারনেট যারা হ্যাক করতো তাদের অভিজ্ঞতা থেকে। যে কোন ধরনের ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট কানেকশনে হ্যাক হবার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশী থাকে। আর সেই আইএসপি সার্ভারে এক্সেস করতে হলে সেখানকার তথ্য বা ডিটেইলস নিশ্চয়ই কেউ না কেউ দিয়ে থাকে। ণয়তো একজন হ্যাকারের পক্ষে একা একা একদম কম্পিউটার পর্যন্ত আসা সম্ভব হবে না। যদি আইএসপি না দেয় যারা ব্রডব্যান্ড সেল করে তারা দিছে বা যদি ব্রডব্যান্ড সেলার না দেয় তাহলে রাষ্ট্রের প্রযুক্তি মন্ত্রনালয় বা সারা দেশেল আই এস পি মালিকদের সংগঠন কোয়াব তারা জানে। এক কথায় কোন তৃতীয় পক্ষের সাহায্য ছাড়া কেউ কারো কম্পিউচটার বা ইন্টারনেট একাউন্ট ডিটেইলস হ্যাক করতে পারে না। আরো একটা উপায় আছে হ্যাকড হবার- সেটা হইতাচে আপনি যেনো মনে মনে পাসওয়ার্ড না আওরান। কারন দেয়ালেরও কান আছে।  
 
 

No comments:

Post a Comment

Thanks for your comment. After review it will be publish on our website.

#masudbcl

Marketplace English Tutorial. Freelancing.Outsourcing.

ফ্রিল্যান্সার/মার্কেটপ্লেস/আউটসোর্সিং জগতে পজিটিভ থাম্ব বলতে কি বোঝেন?

ইন্টারনেটে এখন অনেক খানে পজিটিভ থাম্বের ব্যবহার আছে। যে কোন পোষ্টের নীচে অনেক সময় থাম্ব ব্যাপারটা দেখা যায়। আবার অনেকখানে অনেক ওয়েবসাইটে আছে...