Translate

Tuesday, September 29, 2020

masudbcl.com ডোমেইন ফেরত পাওয়া। ডোমেইন পার্ক।

কিছুদিন আগে আমার এক ক্লায়েন্ট আমাকে বলতাছে- তার একসাথে ৭টা ডোমেইন কিনতে হবে। আমি ভেবেছি উনি আমাকে ৭ টা ওয়েবসাইট ডিজাইন করাবে। পরে বলতাছে: ডোমেইন গুলো উনি কিনে রাখবে যেনো যারা ডোমেইন গুলো খুজবে তারা পরে তার কাছ থেকে বেশী দাম দিয়ে কিনে নেয়। এই ব্যাপারটাকে ডোমেইন পার্কিং বরে সহজ ভাষাতে। এখানে আরো অনেক স্মার্ট উপায় আছে। যেমন: যে ওয়েবসাইট থেকে ডোমেইন কেনা হয় সে ওয়েবসাইট কে বলে রাখা যায় যে : আমার ডোমেইন টা আমি পার্ক  করে রাখলাম। আমাকে  যে কেউ অপর সেন্ড করতে পারবে। আমি কারো অফার পছন্দ হলে তার কাছে সেল করতে পারবে। এইখানে একটা ইউটিউব ভিডিও আছে যেখানে আপনি দেখতে পারবেন যে- এইখানে গনজাগরন রিলেটেড একটা ডোমেইন দেখাইতাচে যার মূল্য প্রায় ৫০০০ ডলারের চেয়েও বেশী। যাকে এইখঅনে প্রিমিয়াম ডোমেইন হিসাবে মেনশন করা আছে। এইটাও এক ধরনরে ডোমেইন পার্কিং। 




ডোমেইন পার্ক করার জন্য খুব পপুলার একটা কোম্পানী নাম: সেডো। আপনি নীচে ক্লিক করেও আপনি রেজিষ্ট্রেশন করতে পারেন ফ্রি বা ওয়েবসাইটের সাইডেও ব্যানার পাবেন যে কোন সময়ে রেজিষ্ট্রেশন করার জন্য। যেমন ধরেন: আপনি খুব পপুলার। আপানর খুব পপুলার একটা নাম আছে। দরেন: আমার নাম : মাসুদবিসিএল। ইন্টারনেটে সবাই আমাকে এই নামে সার্চ করে। এখন আপনি এই নামে একটা ডোমেইন কিনে সেটাকে পার্ক করে রাখলেন। যেহেতু সবাই এই নামে সার্চ করে সেহেতু আপনি এই নামের ডোমেইন টাকে নেইম চিপ থেকে বাই করে সেডোর মাধ্যমে পার্ক করে রাখলেন। পার্ক করে রাখা অবস্থায় আপনার ডোমেইন নেমে লিখে যখন কেউ সার্চ করবে তখন সেডো সেখানে কিছু ভ্যানার বা এডভার্টাইজিং লিংক রেখে দিবে। ফরে সেখানে যদি কেউ ক্লিক করে তাহলে আপনার মানি উপার্জন হবে যা আপনি সেডো থেকে পরে পেপাল বা ব্যাংক ওয়ারের মাধ্যমে উইথড্র বা তুলে নিতে পারবেন। এইভাবে যদি আপনার ভালো না লাগে তাহলে যে কোন সময়ে বা একটি নির্দিষ্ট সময় পরে আপনি চাইলেও এড গুলো তুলে নিতে পারবেন বা আপনি সেই ডোমেইন কে সেল করে দিতে পারবেন বা আপনি চাইলে সেই ডোমেইন দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরী বা ব্লগ ও করতে পারবেন। এই পদ্বতিটা তুমুল জনপ্রিয় অনেকের কাছে কারন পৃথিবীতে প্রতি মূহুর্তে ই নতুন নতুনি কিওয়ার্ড পপুলারিটি প্রাধান্য পাইতাছে আর মানুষ ও সেগুলো অনেক সময় ডট কম লিখে সার্চ দেয় আর সেখানে দিয়ে রাখা কোডের মাধ্যমে ব্যানার বা লিংক দিয়ে রাখে যেখানে সহজেই ক্লিকেআসে আর উপার্জন ও জমা হয়। এই ধরনের ক্যারিয়ারকে অনেক সময় ডোমেইন পার্কার নামেও অভিহিত করা যায়। সেডো র ক্ষেত্রে আপনি সেডো থেকেই ডোমেইন কিনে সেখানে পার্ক করবেন। 

  

আরো অনেক ধরনের ফ্যাসিলিটজ সহ বিভিন্ন ধরনের ডোমেইন পার্ক সিষ্টেম আছে- যেমন ক্লাউড ডিএনএস  বা ডোমেইন পার্ক বা আরো কিছু। সবগুলো ষ্টাডি করে আপনি বিভিন্ন ধরনের ডোমেইন পার্কিং ওয়েবসাইট এনালাইস করে যেটা আপনার জন্য বেষ্ট সেটাই আপনি চয়েজ করবেন। যেমন: এই মূহুর্তে বাংলাদেমেল পপুলার কি ওয়ার্ড-  বাবু খাইছো। আপনি যদি সেটা কে মার্ক করে সেডো থেকে কিছু ডোমেইন কিনেন আর সেখানে কিছু বপেইড ব্যানার বা পেইড লিংক এড করে রাখেন তাহলে আপানর সেই ডোমেইন টাতে যে কেউ সার্চ করবে আর এড গুলোতেও  ক্লিক করবে- তখন আপনার অনেক উপার্জন হবে বলে আশা করা যায়।

লোকাল ডোমেইন পার্ক:
লোকালি প্রতি মূহুর্তে বাংলাদেশে যে ডোমেইন গুলো আপনি কিনে রাখবেন সেগুলোতে আপনি যদি ব্যানার বা লিংক এড করে রাখেন তাহলে সেটাও হবে উপার্জ নের একটা মাধ্যম। আপনি যখন কোন পার্কড ডোমেইন দেখবেন তখণ সেখানে কিছু এড বা ব্যানার দেখবেন। যেমন: আপনি যদি ব্রাউজারে masudbcl.com লিখেন তাহলে সেটা আপনাকে masudbcl.xyz এ নিয়ে যাবে। এইখানে masudbcl.com ডোমেইনেএ যদি আপনি সার্চ করেন আর masudbcl.net কে এভইলেবল পান তাহলে এইখানে masudbcl.net কে কিনে আপনি পার্ক করতে পারেন। এছাড়াও আরো অনেক কুটি নাটি ব্যাপার আছে যা আপনি নিজে ষ্টাডি করলে বুঝে যাবেন। আমি খখনো ডোমেইন পার্ক  করি নাই কিন্তু আমার masudbcl.com ডোমেইন টা পার্ক করা ছিলো দীর্ঘ ৮/৯ বছর। মানে হইতাছে কেউ যদি আমার masudbcl.com ডোমেইন এ যাইতো আর সেখানে থাকা এড বা ব্যানার বা লিংকে ক্লিক করতো তাহলে সেখানে ডলার উপার্জিত হতো যে ডোমেইনটাকে পার্ক করে রেখেছিলো তার। লোকালি আপনি যে কোন পপুরার কি ওয়ার্ডের উপর ভিত্তি করে ডোমেইন কে পার্ক করে রাখতে পারেন এবং পরে সময়মতো ভালো দামে সেল করে দিতে পারবেন। ডোমেইন পার্ক করে ব্যবসা করতে চাইলে সেডো থেকে কিন পার্ক করলে ভালো হবে। আমাদের দেশের অনেক ছেলে মেয়ে একবার ডোমেইন কিনে সেটাকে আবার লোকাল মার্কেটে সেল করে থাকে। আগে থেকে কিন রাখে পপুলার  কি ওয়ার্ডের উপর ভিত্তি করে ডোমেইন আর পরে সেটা যারা খোজ করে বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপের মাধ্যমে সেগুলো সেল করে ফেলে। ফলে দেখা যায় যে- তারা ডোমেইন এর মালিকানা পরিবর্তন করে ভালো টাকা উপার্জন করে থাকে। 



ডোমেইন কেনা বেচা করা, কম দামে একজনের কাছ থেকে ডোমেইন কিনে আরেকজনের কাছে সেল করা এগুলোর জণ্য আলাদা মার্কেটপ্লেস আছে যাকে বলা হয় ডোমেইন মার্কেটপ্লেস। তাছাড়া ডোমেইন অকশন, এড অন ডোমেইন, সাবডোমেইন, ডোমেইন রিডাইরেক্ট এরকম আরো কিছু বিয়স আলোচনা করবো সামনের পোষ্টগুলোতে। 


No comments:

Post a Comment

Thanks for your comment. After review it will be publish on our website.

#masudbcl

Marketplace English Tutorial. Freelancing.Outsourcing.